লেবু পানি :

ক্যালরি কম থাকায় এবং অন্যান্য উপাদান বেশি থাকায় লেবু ওজন কমাতে সাহায্য করে। এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন সকালে হালকা গরম জলে লেবুর রস মিশিয়ে এক গ্লাস করে খেতে হবে।

ওটস :

খাদ্য মান সঠিক এবং ভিটামিন সঠিক মাত্রায় থাকায় ওটস ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে। তিন থেকে চার চামচ ওটস পানিতে ভিজিয়ে খালি পেটে প্রতিদিন সকালে পান করুন।

এলোভেরা :

এ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় এটি শরীরের অতিরিক্ত চর্বির মাত্রা কম করে থাকে।

সবজি জুস :

গাজর শসা ও স্যালারি শাকের জুস শরীর থেকে অতিরিক্ত চর্বি কমিয়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

গমের শীষের জুস :

গমের শীষে রয়েছে প্রচুর খাদ্য আশ যাতে নেই কোন চর্বি। কয়েকটি গমের শীষের রস বের করে এর সাথে আধা গ্লাস পানি ও লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন।

দারুচিনি পানি :

আধা চা চামচ দারুচিনি গুড়া এক কাপ গরম পানিতে মিশিয়ে পান করুন। তাহলে এটি আপনার ওজন কমতে সাহায্য করবে।

সালাত :

সালাত নাস্তার বিকল্প হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। এটি খাদ্য আশ ও ভিটামিন সমৃদ্ধ। সকালের নাস্তায় সালাত খাওয়া চর্বি গলান ও ওজন কমানোর একটা উপায়।

বন গম :

এক বাটি বন গম নিয়ে গরম পানিতে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে এটা গুলিয়ে জুস তৈরী করে খালি পেটে খান।

কাজু বাদাম :

ওমেগা-৩ ফ্যাটিএসিড ,জরুরী ভিটামিন ও খনিজ পুষ্টিতে ভরপুর সেরা বাদাম এটি। জল খাবার হিসাবে কাজু বাদাম অতুলনীয় যদি আপনি ওজন কমানোর চেষ্টা করেন।

ডিম :

ডিমে ক্যালরি ও ফ্যাট কম তাছাড়া প্রোটিনের ভাল উৎস। ডিম শরীরে হজম প্রকৃয়া বাড়াতে সাহায্য করে থাকে । যার ফলে এটি আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে আপনাকে সাহায্য করে থাকে।