Home » আকন্দ এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন
আকন্দ গুল্ম

আকন্দ এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

আকন্দ এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

আকন্দ এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

পরিচিতি

আকন্দ আবার অর্ক বা আকন নামেও কোথাও কোথাও পরিচিত। গাছটি ঝোপ জাতীয়, ২-৩ মিটার উঁটু হয়। সাদাটে সবুজ রঙের পুরু পাতার আকার বট গাছের পাতার মতো। কচি ডগার রংও  একই। পাতার বোঁটায় এবং ডালে দুধের মতো কষা বা আঠা (ক্ষীর) আছে। পাতার উপরিভাগ মসৃণ  এবং নিচের দিক তুলার ন্যায় লোমে আচ্ছাদিত।

ঔষধি গুণ

১। আকন্দ আমাদের গ্রামবাংলায় মূলত হাপানি রোগের চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্যই পরিচিত। আয়ুর্বেদাচার্য শিবকালী ভট্রাচার্যের মতে ১৪টি

আকন্দ ফুলের মাঝখানে চারকোনা অংশের সাথে ২১ টি গোলিমরিচ দিয়ে একসাথে বেটে ২১টি বড়ি করে শুকিয়ে নিয়ে প্রতিদিন সকালে একটি করে খেলে ২১ দিনে অনেকের হাঁপানি রোগের উপশম হয়। তবে কার্হিয়াক অ্যজমায় এটি ব্যবহার করা উচিত নয়।

২। অজীর্ণ, অগ্নিমান্দ্য ও অম্লরোগে সতেজ আকন্দ পাতার সাথে এর আট ভাগের এক ভাগ ওজনের খাঁটি সৈন্ধব লবণ হাঁড়ির মধ্যে পুরে মুখ বন্ধ করে আগুনে পোড়াতে হবে (অন্তর্ধুমে) পোড়ানো)। তারপর ভিতরের পোড়া কোলো মিশ্রণটি গুঁড়া করে আধা গ্রাম করে খাওয়ার পরে পানি দিয়ে খেতে হবে।

৩। আকন্দের মূলের ছাল শুকিয়ে গুঁড়া করে আকন্দের আঠা দিয়ে মুড়িয়ে শুকিয়ে দিতে হবে। পরে এটিকে বিড়ির পাতায় ডেকে বিড়ি তৈরি করে বিড়ির মতো টানলে হাঁপানির টান লাগব হয়।

৪। চরক সংহিতার মতে যাদের অর্শের বলি বাইরে বেরিয়ে রয়েছে, তারা ঐ পাতার গুঁড়া আগুনে দিয়ে সেই ধূম লাগালে কয়েক দিনের মধ্যেই তা চুপসে যায়।

৫। অথর্ববেদে আছে আকন্দের পাতা দিয়ে ব্রণ বেঁধে রাখলে ব্রণ ফেটে যায়।

৬। একটি আকন্দ পাতা পানিতে সিদ্ধ করে ঐ ক্বাথ দিয়ে দূষিত ক্ষত ধুলে পুঁজ সৃষ্টি বন্ধ হয়।

৭। বিছায় কামড়ালে সে স্থানে আকন্দের আঠা লাগালে উপশম হয়।

৮। বুকে সর্দি বসায় হাঁসফাঁস করতে হচ্ছে, এরুপ ক্ষেত্রে বুকে পুরোনো ঘি মালিশ করে আকন্দ পাতা গরম করে সেই পাতা দিয়ে সেক দিলে সর্দি উঠে আসে।

৯। সরিষার তেল গরম করে ফেনা কমলে তেলের চার ভাগের এক ভাগ আকন্দের আঠা মিশিয়ে গরম করে নামাবার আগে একটু কাঁচা হলুদ মিশিয়ে খোসপাঁচড়া ও একজিমায় লাগালে তা সেরে যায়।

১০। ঠাণ্ডাজনিত শরীর ব্যথা ও বুকের ব্যথায় পাতা গরম করে ব্যবহার করলে উপশম হয়।

১১। দংশিত স্থানে আকন্দের আঠা বা পাতা বেটে লাগালেও যন্ত্রণা কমে যায়।

অন্যান্য ব্যবহার

আকন্দের তুলা বালিশ তৈরিতে ব্যবহার হয়। িএ ছাড়া আকন্দে গাছ, ডালপালা গ্রামে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করে।

Sending
User Review
0 (0 votes)
Tags








ভেষজ দোকান

HF