Home » বেল এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন
বৃক্ষ বেল

বেল এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

বেল এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

বেল এর উপকারিতা ও ঔষধি গুন

পরিচিতি

বেল/শ্রীফল/বিল্ব (Wood Apple) গাছ ১০-১১ মিটার উচ্চতা বিশিষ্ট মাঝারি আকারের পত্রঝরা বৃক্ষ। পাতার গোড়ায় শক্ত কাঁটা থাকে ও প্রতি পাতায় ৩-৫ টি পত্রক থাকে। গাছের বাকল পুরু, নরম এবং ধূসর বর্ণের। মিষ্ট গন্ধযুক্ত হালকা সবুজে ফুল ছোট ছোট থোকায় ধরে। ফুলের পাপড়ি তাড়াতাড়ি খসে পড়ে। মে মাসে ফুল হয়। ফল বড়, গোলাকার ৮-২০ সে.মি. ব্যসার্ধ । ফলের ভিতর ৮-১৫টি প্রকোষ্ঠ আছে, প্রতি প্রকোষ্ঠে আঠার ভিতরে একাধিক লোমশ বীজ থাকে। ফল পরের বছর মার্চ-এপ্রিল মাসে পাকে। ফলের খোসা কাষ্ঠকঠিন। বেলপাতা হিন্দুদের পূজার অপরিহার্য ‍উপাচার।

ঔষধি গুণ

১। (ক) বেলে essential oil রয়েছে তাই বেল ফলের শাঁস পেটের পীড়ায় অত্যন্ত উপকারী। এটি হজম শক্তি বৃদ্ধি করে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে ও আমাশয় নিরাময় করে।

(খ) কাঁচা বেলের শাঁস চাকা চাকা করে কেটে শুকিয়ে বেলগুঁঠ প্রস্তুত হয়। এটি পরিপাক যন্ত্রের পীড়া, আমাশয় ও উদরাময়ে উপকারী। পাকযন্ত্রে পীড়ায় এর তুল্য আর দ্বিতীয় ওষুধ নেই।

২। চোখে পাতার প্রলেপ দিলে চোখ ওঠা রোগের আরাম হয়।

৩। এক চামচ বেল পাতার রস খেলে কাঁচা সর্দি ও জ্বর জ্বর ভাব দূর হয়। শিশুদের মাত্রা আরো কমে।

৪। বেল পাতার সঙ্গে ৩/৪টি গোলমরিচ পিষে ফোড়ার উপর লাগিয়ে দিলে ফোড়া বসে যায়।

৫। মূলের চালের রস রক্তের সুগার কমায় এবং হৃৎপিন্ডের ও পেটের ব্যথা সারায়।

৬। উত্তেজনা কমাতে প্রতিদিন বেল পাতার রস খুবই কার্যকরী।

অন্যান্য ব্যবহার

কাঠ হলুদাভ সাদা, শক্ত সুগন্ধিযুক্ত এবং ভালো পালিশ নেয়। বেল কাঠ গাড়ি, কৃষি উপকরণ, যন্ত্রের হাতল, খোদাই কাজ, চিনি ও তেলের ঘানিতে ব্যবহার হয়। বীজের সাথে যে আঠালো পদার্থ থাকে তা আঠা তৈরিতে ব্যবহার হয় এবং কাঁচা ফলের খোসা দিয়ে হলুদ রং তৈরি হয়।







past