Home » তুলসী পাতার চা

তুলসী পাতার চা

basil tea

বিশ্বব্যাপী হরেক রকমের চায়ের প্রচলন রয়েছে। এগুলোর রয়েছে নিজস্ব উপকারিতা। আমাদের দেশে সাধারণত আদা চা, সবুজ চা, নিম চা ছাড়াও বেশ কয়েকটি চায়ের প্রচলন রয়েছে। এর মধ্যে তুলসী চাও রয়েছে। এর রয়েছে হরেক রকমের স্বাস্থ্যগুণ।

জেনে নিন কীভাবে তৈরি করবেন তুলসি চা-

উপকরণ
পানি- ৩ কাপ
আদা কুচি- আধা চা চামচ
মধু- ৫ ফোঁটা
তুলসি পাতা- ১৫ টি
লেবুর রস- ১০ ফোঁটা
সবুজ এলাচ গুঁড়া- ১/৪ চা চামচ

প্রস্তুত প্রণালি
চা বানানোর পাত্রে ৩ কাপ পানি নিন। তুলসি পাতা কুচি, আদা কুচি ও ইলাচ গুঁড়া দিয়ে দিন পানিতে। ১০ মিনিট ফুটান। ছেঁকে চায়ের কাপে ঢালুন। মধু ও লেবুর রস দিয়ে নেড়ে গরম গরম পরিবেশন করুন তুলসি চা।

* এছাড়াও তুলসি পাতা রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে নিয়ে চা পাতার মতো ব্যবহার করতে পারেন।

তুলসী পাতার চা এর কিছু  অসাধারণ গুনাবলী

১) শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা দূর করে
সর্দি, কফের সমস্যা এবং সাইনোসাইটিসের সমস্যায় যারা রয়েছেন তারা নিয়মিত তুলসি চা পান করলে শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন দ্রুত।

২) জ্বর কমায়
তুলসি চা জ্বরের ঔষধ হিসেবে পান করলে অনেক ভালো উপকার পাওয়া যায়। বিশেষ করে যদি চায়ে যোগ করা হয় দারুচিনি তাহলে দ্রুত ফল পাওয়া সম্ভব।

৩) পেটের গণ্ডগোল দূর করে
হজমে সমস্যার কারণে অনেকে প্রায়ই পেটে গণ্ডগোলে ভুগে থাকেন। নিয়মিত তুলসি চা পানের অভ্যাস করুন সমস্যার সমাধান হবে।

৪) খারাপ কলেস্টোরল কমায়
প্রতিদিন ১ কাপ তুলসি চা পানের অভ্যাস দেহের খারাপ কলেস্টোরল কমিয়ে দেয়। তুলসির ফাইটোকেমিক্যালস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অর্গানিক কম্পাউন্ড দেহের খারাপ কলেস্টোরলের মাত্রা কমায়।

৫) দৃষ্টিশক্তির সমস্যা দূর করে
তুলসির বেটা ক্যারোটিন, ভিটামিন এ চোখের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী। এটি রাতকানা রোগ সহ নানা চোখের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে।

৬) দাঁত ও মুখের সমস্যা দূর করে
তুলসি পাতার ভিটামিন সি দাঁত ও মাড়ির নান সমস্যা সমাধানে বিশেষভাবে কার্যকরী। এছাড়াও তুলসি পাতার গুঁড়ো পানি দিয়ে মিশিয়ে পেস্টের মতো দাঁত ব্রাশের কাজে ব্যবহার করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

৭) মানসিক চাপ দূর করে
খুব বেশি মানসিক চাপের মধ্যে সময় কাটালে প্রতিদিন তুলসি চা খাওয়ার অভ্যাস করা উচিত। কারণ তুলসি চায়ের মতো অ্যারোমেটিক বেভারেজ মানসিক চাপ দূর করতে বিশেষভাবে সহায়ক।

৮) অল্প বয়সে বুড়িয়ে যাওয়া প্রতিরোধ করে
তুলসি পাতার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইটোকেমিক্যালস ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে বাঁধা প্রদান করে। এছাড়াও এর ভিটামিন এবং মিনারেলস দেহের ইমিউন সিস্টেম উন্নত করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। ফলে অল্প বয়সে বুড়িয়ে যাওয়া প্রতিরোধ করে।

৯)  স্তন ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণে তুলসী পাতার চা বিশেষ সহায়ক।

Sending
User Review
0% (0 votes)







past